মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

শরণখোলায় মোহাম্মদ আলী নামে ৭৫ বছরের এক বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক:
  • Update Time : শনিবার, ২০ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩৬ Time View

মোঃ হাসিবুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ

প্রথম স্ত্রীর অসুস্থ হওয়ায় তার সেবা যত্ন করার জন্য অনুমতি সাপেক্ষে গত চারদিন আগে দ্বিতীয় বিবাহ করে বউ বাড়িতে নিয়ে আসেন মোহাম্মদ আলী খাঁন (৭৫)।

এই বিবাহ এবং বাড়ির মধ্যে চারটি মেহগনি গাছ তিন হাজার টাকায় বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার মেঝ ছেলে রফিকুলের সাথে বাকবিতন্ডতার সৃষ্টি হয়। ঐ সময় পিতাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল সহ কুপিয়ে মারার হুমকি দেয় পুত্র রফিকুল। ঘটনার ২৪ ঘন্টা পার না হতেই ১৯ এপ্রিল (শুক্রবার) রাত আনুমানিক নয়টার দিকে রফিকুলের বাড়ির সামনেই নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে ওই বৃদ্ধকে।
হৃদয় বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে বাগেরহাটের শরণখোলায় খোন্তাকাটা ইউনিয়নের মধ্য খোন্তাকাটা (ভাড়ানিরপাড়) এলাকায়। সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আশিকুর রহমান, শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ এএইচএম কামরুজ্জামান খাঁন, ওসি তদন্ত রাধেশ্যাম সরকার, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খাঁন মহিউদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তবে, ঘটনার পর থেকেই রফিকুল নিখোঁজ থাকায় এলাকাবাসীর ধারনা নিহতের পুত্র এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে।
এলাকাবাসি ও নিহতের বড় পুত্র মশিউর খাঁন জানান, উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের ভারানিরপাড় এলাকার বাসিন্দা মৃত আসমত আলীর পুত্র মোহাম্মদ আলী খান গত চার দিন আগে খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার পাটকেলপোতা গ্রামের চাঁন মিস্ত্রির মেয়ে মাজু বেগম(৪৫) কে বিবাহ করে বাড়ি নিয়ে আসে। এ নিয়ে ছেলে সন্তানের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এছাড়া বসত বাড়ির মধ্যে চারটি মেহগিনি গাছ তিন হাজার টাকায় বিক্রির ঘটনায় রফিকুলের সাথে ঝগড়াঝাটি হয়। এক পর্যায়ে রফিকুল তার বাবাকে দেখে নেয়ার হুমকি দেয়। ১৯ এপ্রিল রাত সাড়ে আটটার দিকে আকাশ টিভির কার্ড রিচার্জ করতে বাড়ি থেকে বের হয়ে পার্শবর্তি দোকানে যাওয়ার সময় রফিকুলের বাড়ির সামনে নিশংস ভাবে খুন হয় মোহাম্মদ আলী।

নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী মাজু বেগম জানায়, বাড়ির মধ্যে থেকে চারটি মেহগনি গাছ বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার তার স্বামীর সাথে মেঝ ছেলে রফিকুলের ঝগড়া হয়। ঐ সময় সে আমার স্বামীকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি এবং কুপিয়ে মারার হুমকি দেয়।
এ ব্যপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন বলেন, রফিকুলের বিরুদ্ধে এলাকায় ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। তবে এ হত্যা কান্ডের সাথে রফিকুল জড়িত কিনা তা তিনি জানেন না।

শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এএইচএম কামরুজ্জামান খাঁন জানান, এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে মশিউর বাদী হয়ে শরণখোলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। সুরতহাল রিপোর্ট সম্পন্ন শেষে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শীগ্রই ঘাতককে গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesba-lates1749691102