লিখিত আবেদনে পুরুষ ধর্ষণকে অপরাধ হিসাবে গণ্য করার জন্য হাইকোর্টের নির্দেশনা চেয়েছে

0
50



ধর্ষণ হিসাবে পুরুষদের লঙ্ঘনকে বিবেচনা করে প্রাসঙ্গিক আইন সংশোধন করার জন্য সরকারকে তার আদেশ চেয়ে হাইকোর্টে আজ একটি রিট আবেদন করা হয়েছিল।

ডাঃ সৌমেন ভৌমিক, একজন সমাজকর্মী; তাসমিয়া নুহাইয়া আহমেদ, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী; এবং মানবাধিকার সংগঠন ‘সাধারণ মানুষের আইনের মাধ্যমে ক্ষমতায়ন’ এর পরিচালক ডাঃ মাসুম বিল্লাহ সম্মিলিতভাবে এই হাইকোর্টের কাছে জনস্বার্থ মামলা, এই আবেদনটি বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৩ 37৫ ধারা সংশোধন করার জন্য সরকারের কাছে আবেদন করার অনুরোধ জানিয়ে আবেদনটি জমা দিয়েছেন বিভাগে “মহিলা” শব্দের স্থলে “ব্যক্তি”।

আবেদনে তারা হাইকোর্টকে আইন মন্ত্রককে আইনজীবি ও সুশীল সমাজের সদস্যদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনের জন্য প্রতিমাসে দণ্ডবিধির ৩ 37৫ ধারা সংশোধনের অগ্রগতি সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানান।

এই আবেদনের বরাত দিয়ে রিট আবেদনকারীদের আইনজীবী তাপস কান্তি বাউল দন্ডবিধির ৩ 37৫ ধারার অধীনে ডেইলি স্টারকে বলেছিলেন, কোনও মহিলার দ্বারা যৌন নির্যাতন করা হলেই তাকে ধর্ষণ বলে গণ্য করা হয়।

মহিলা ভুক্তভোগীরা দণ্ডবিধির এই বিধানের অধীনে অপরাধের জন্য বিচার চাইতে পারেন।

তবে, পুরুষদের লঙ্ঘনকে অপরাধ হিসাবে গণ্য করার জন্য এই ধারায় কোনও বিধান নেই এবং তাই, এই বিধানের আওতায় পুরুষ ক্ষতিগ্রস্থদের ন্যায়বিচার ও প্রতিকার পাওয়ার কোনও সুযোগ নেই, তিনি বলেছিলেন।

আইনজীবী তাপস আরও বলেছিলেন, দেশে পুরুষদের লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে, তবে আইন অভাবের কারণে তারা ন্যায়বিচার পাচ্ছেন না।

তিনি বলেন, এই আবেদনটি কয়েক সপ্তাহের মধ্যে শুনানি হতে পারে এইচসি।



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here