ডায়রিয়ায় পটুয়াখালীতে ৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে

0
28


গত কয়েকদিনে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়েছে।

এই রোগটি ইতিমধ্যে গত দুই দিনে কমপক্ষে চারজনের জীবন দাবি করেছে।

সমস্ত সর্বশেষ খবরের জন্য, ডেইলি স্টারের গুগল নিউজ চ্যানেলটি অনুসরণ করুন।

নিহতরা হলেন- কাঁথালতলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী শাহারা সানফুল (১৫) এবং মির্জাগঞ্জ উপজেলার সমাদ্দারকাঠি গ্রামের রাকিব খন্দকারের মেয়ে, উপজেলার মাধবখালী এলাকার তৈয়ব আলী সিকদার (75৫), জলিশা গ্রামের আবদুল হক মুন্সী (৮২) ডুমকি উপজেলা, এবং বাউফল উপজেলার কেশবপুর এলাকার খাদিজা বেগম (৩৫)।

তাছাড়া, গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে কমপক্ষে ৩১৩ জন ডায়রিয়ার রোগীকে জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রোগীরা অবশ্য বিভিন্ন হাসপাতালে স্যালাইন ব্যাগ ও পর্যাপ্ত বিছানার সুবিধার মুখোমুখি হচ্ছেন।

বেশিরভাগ রোগীর উপস্থিতির অভিযোগ, একটি স্যালাইন ব্যাগ, যার দাম সাধারণত 92 টাকা হয়, এখন বিক্রি হচ্ছে 200 থেকে আড়াইশ টাকায়।

এদিকে পটুয়াখালী সিভিল সার্জন জাহাঙ্গীর আলম জানান, ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের যথাযথ চিকিৎসা নিশ্চিত করতে 84৪ টি পৃথক মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মনির হোসেন তালুকদার বলেছেন, রবিবার সকালে শাহারা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে একই বিকেলে বাড়িতে মারা যান, আর একই সকালে তৈয়ব বাসায় মারা যান।

তিনি বলেছিলেন যে তাঁর এলাকার দুই শতাধিক মানুষ ডায়রিয়ায় ভুগছেন।

ডামকি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মীর শহিদুল হাসান জানান, রবিবার ডামকি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যাওয়া আবদুল হক ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হলেও তাকে নিউমোনিয়ার লক্ষণ রয়েছে।

মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দিলরুবা ইয়াসমিন লিজা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় কমপক্ষে 93৩ জন ডায়রিয়ার রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ায় উপজেলায় ডায়রিয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে।

তিনি জানান, গত সাত দিনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কমপক্ষে ৩৪৯ জন লোক চিকিৎসা নিয়েছেন বলে তিনি জানান।

এদিকে রবিবার দুপুরে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার সময় গৃহবধু খাদিজা ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

এদিকে, গত কয়েকদিনে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের ১০০ শয্যার ডায়রিয়া ওয়ার্ডে কমপক্ষে ১৫ 15 জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে।

সদর উপজেলার নন্দীপাড়া এলাকার জব্বার খলিফা জানান, তাঁর আট বছরের মেয়ে আফরোজা ও দুই বছর বয়সী নাতি জুনাইদকে যথাক্রমে শনি ও রবিবার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল, তবে হাসপাতাল থেকে কোনও স্যালাইন ব্যাগ সরবরাহ করা হয়নি এবং তাদের যেতে হয়েছে। বাইরে থেকে স্যালাইন ব্যাগ বেশি দামে কিনুন।

পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাঃ লোকমান হাকিম বলেছেন, গত কয়েকদিনে রোগীর সংখ্যা বাড়ার কারণে স্যালাইন সংকট দেখা দিয়েছে।

পটুয়াখালী সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জেলার পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালসহ আটটি উপজেলা হাসপাতালে কমপক্ষে ৩১৩ টি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে।

এর মধ্যে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে, 76 জন, মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে 93৩ জন, গলাচিপা ও বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪০ জন, দশমিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২৫ জন, ডামকি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১, জন, কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১২ জন এবং হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ১০।



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here